চট্টগ্রামে আকাশের স্ত্রী, শশুর-শাশুড়ীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

1 min read

নিউজ ডেস্ক: চট্টগ্রামের তরুণ চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের আত্মহত্যার ঘটনায় আটক স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) চান্দগাঁও থানায় মামলাটি করেন আকাশের মা জোবেদা খানম। মামলার বাকি আসামিরা হলেন- মিতুর মা শামীম শেলী, বাবা আনিসুল হক চৌধুরী, বোন সানজিলা হক চৌধুরী আলিশা এবং মিতুর বন্ধু ভারতীয় নাগরিক উত্তম প্যাটেল ও ডা. মাহবুবুল আলম।

চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বশর জানান, আকাশের আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচণার অভিযোগে ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এরই মধ্যে আটক মিতুকে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাঁকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার ভাড়াবাসায় নিজের শরীরে ইনসুলিন ইনজেকশন পুশ করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা. মোস্তফা মোরশেদ আকাশ (৩৩) আত্মহত্যা করেন।

মৃত্যুর আগে আকাশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ত্রী মিতুর সঙ্গে অন্য পুরুষের অন্তরঙ্গ ছবি ও চ্যাটের স্ক্রিনশট পোস্ট করে তাতে সুইসাইড নোট লিখে তাঁর মৃত্যুর জন্য স্ত্রী ও শ্বশুর-শাশুড়িকে দায়ী করেন।

এরপর কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর নন্দনকাননের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে আত্মগোপনে থাকা মিতুকে আটক করে।

+ There are no comments

Add yours