কোটা আন্দোলনে ‘টেক ব্যাক’ স্লোগান কিসের আলামত?

1 min read

নিউজ ডেস্ক : সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালের দাবি আদায়ে শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীদের ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি চলছে। ‘বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন’ ব্যানারে কর্মসূচি শুরু হয়। কোটা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

আন্দোলনের পঞ্চমতম দিনে বিএনপির সমর্থন জানিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘এ আন্দোলনকে আমরা যৌক্তিক মনে করি। ছেলেদের যে দাবি, সেটা আমরা সমর্থন করি। এটাকে অযৌক্তিক বলার কোনো কারণ নেই।’ এরপরের দিন থেকেই রহস্যজনকভাবে কোটা আন্দোলনে অংশগ্রহণকারীদের মুখে ‘টেক ব্যাক’ স্লোগানটি যুক্ত হয়। মূলত, যা বিএনপির দলীয় আন্দোলনের স্লোগান।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এ স্লোগানই প্রমাণ করে- এই কোটা আন্দোলনের ওপর ভর করে রাজনৈতিক ফায়দা লুটার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বিএনপি।

এই ‘টেক ব্যাক’ স্লোগান নিয়ে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের নেতাদের মধ্যে মতবিরোধ লক্ষ্য করা গেছে। বৈষম্যবিরোধী আন্দোলন ঢাকা কলেজ শাখার সমন্বয়ক নাজমুল হাসান বলেন, ‘কোটাবিরোধী আন্দোলন বৈষম্যের বিরুদ্ধে আন্দোলন। এটি কোনো দলের রাজনৈতিক আন্দোলন নয়। তবে সারা দেশে কোটাবিরোধী আন্দোলন গতি পাওয়ার সাথে একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের অঙ্গসংগঠনের কতিপয় নেতা আমাদের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করার চেষ্টা করছে। শুনেছি, আমাদের কয়েকজন সমন্বয়ককে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে এ আন্দোলনকে সরকারবিরোধী আন্দোলনে রূপ দেওয়ার প্রস্তাব এসেছে। কিন্তু আমরা সে প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছি।’

এরপর থেকেই বিভিন্ন জায়গায় বিএনপির দলীয় ‘টেক ব্যাক’ স্লোগানটি উচ্চারিত হচ্ছে বলে লক্ষ্য করা যাচ্ছে বলে জানান নাজমুল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই আন্দোলনের ছদ্মাবরণে মাঠে নেমেছে সরকারবিরোধী শক্তি। আন্দোলনে আর্থিক সহযোগিতা করছে বিএনপি-জামায়াত। ছাত্রদল ও শিবিরকে পেছন থেকে সাংগঠনিক শক্তি দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদের উদ্দেশ্য কোটা আন্দোলনকে সরকারবিরোধী আন্দোলনে নিয়ে যাওয়া। সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলা।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, কোটা পুর্নবহালের রায় স্থগিত করেছে মহামান্য আদালত। প্রতিবাদকারীদের কোনো বক্তব্য থাকলে তা লিখিত আকারে জমা দিতে বলেছেন প্রধান বিচারপতি। আন্দোলন ও জনদুভোর্গ বাড়ানোর আর যৌক্তিক কোনো কারণ থাকলো না। এরপরও যদি এ আন্দোলন চলে তাহলে বুঝতে হবে বিএনপি-জামায়াত এর কলকাঠি নাড়ছে।

আরও পড়তে পারেন

+ There are no comments

Add yours