সাইফের মতো সুদর্শন পুরুষ আগে দেখিনি : কারিনা

1 min read

সংসার জীবনের এক যুগ পার করলেন বলিউডের জনপ্রিয় দম্পতি কারিনা কাপুর ও সাইফ আলি খান। ইন্ডাস্ট্রির ‘পাওয়ার কাপল’ হিসেবে সুপরিচিত এই জুটি। স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বয়সের ব্যবধানটা চোখে পড়ার মতো হলেও সেটা তাদের দাম্পত্য জীবনে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায়নি।

২০০৪ সালে অভিনেত্রী অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হয় সাইফের। এর পরের বছর ২০০৫ সালে কারিনা কাপুরের সঙ্গে প্রথমবারের মতো একটি ফটোশুটে অংশ নেন অভিনেতা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে করিনা জানিয়েছেন, সাইফের কোন বিষয়টি তাকে সর্বপ্রথম আকর্ষিত করেছিল।

কারিনা বলেন, ‘ওর (সইফ) সঙ্গে প্রথম দেখা হওয়ার পরেই মনে হয়েছিল, এত সুদর্শন পুরুষ আমি আগে দেখিনি। তার চোখের মধ্যে অদ্ভুত এক ঝলক ছিল। খুব হাসিখুশিও লেগেছিল দেখে। সবচেয়ে বড় কথা, ওর চোখ দু’টো দেখে খুব দয়ালু মনে হয়েছিল। মহিলারা এই বিষয়টিই সবচেয়ে পছন্দ করেন। ওর মধ্যে কোনও ভণিতা দেখিনি। এটাই আমার প্রথম সাক্ষাতে খুব ভাল লেগেছিল।’

‘টশন’, ‘ওমকারা’, ‘কুরবান’-এর মতো ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন কারিনা ও সাইফ। ২০১২ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন তারকা জুটি। তবে এখনও প্রতিনিয়ত সাইফকে নাকি নতুনভাবে আবিষ্কার করেন কারিনা।

অন্য একটি সাক্ষাৎকারে সাইফ সম্পর্কে অভিনেত্রী বলেন, ‘মানুষ তখনই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়, যখন তারা সন্তান জন্ম দেওয়ার কথা ভাবে। না হলে তো একসঙ্গে থাকলেই হয়! বিয়ের আগে আমি আর সাইফ পাঁচ বছর একসঙ্গে ছিলাম। এরপর আমরা যখন সন্তান জন্ম দেওয়ার কথা ভাবি, তখন বিয়ে করি।’

সাইফ ও কারিনার সংসারে রয়েছে দুইটি পুত্র সন্তান। একজনের নাম তৈমুর, অন্যজনের নাম জেহ্‌। এছাড়া সাইফের প্রথম সংসারেও রয়েছে একটি কন্যা ও একটি পুত্র সন্তান। সবাইকে নিয়ে বর্তমানে সুখী সংসার এই দম্পতির।

আরও পড়তে পারেন

+ There are no comments

Add yours