৩ লাখ সৈন্যকে উচ্চ-প্রস্তুত অবস্থায় রাখা হয়েছে: ন্যাটো

1 min read

রাশিয়ার ক্রমবর্ধমান হুমকি মোকাবিলায় পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য দেশগুলোর ৩ লাখ সৈন্যকে উচ্চ-প্রস্তুত অবস্থায় রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জোটের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা এই তথ্য জানিয়েছেন।

২০২২ সালে ইউক্রেনে মস্কোর হামলার পরিপ্রেক্ষিতে ন্যাটো জোটের নেতারা মাত্র এক মাস সময়ের মধ্যে মোতায়েন করা যেতে পারে এমন সৈন্য সংখ্যা ব্যাপকভাবে বাড়ানোর বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছেছিল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ন্যাটোর ওই কর্মকর্তা বলেছেন, মিত্রদের কাছ থেকে পাওয়া প্রস্তাবনায় আমাদের সৈন্য প্রস্তুত রাখার সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এই সৈন্যদের বিষয়ে মিত্ররা আমাদের বলেছে, এখন পর্যন্ত উচ্চ-প্রস্তুতির স্তরে থাকা আমাদের সৈন্যদের যেকোনও সময় পাওয়া যেতে পারে।

রাশিয়ার সম্ভাব্য যেকোনও ধরনের হামলার দ্রুত প্রতিক্রিয়া জানাতে ন্যাটোর বিস্তৃত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সৈন্যদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে। গত বছর জোটের শীর্ষ এক সম্মেলনে সদস্য দেশগুলোর মাঝে এই বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছিল।

স্নায়ুযুদ্ধের সমাপ্তির পর প্রথমবারের মতো এই পরিকল্পনা হাতে নেয় ন্যাটো। মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা এই জোটের প্রত্যেক সদস্য মস্কোর আক্রমণের ক্ষেত্রে কী ধরনের পদক্ষেপ নেবে, সেই পরিকল্পনার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য ছিল সমঝোতায়।

প্রয়োজনে তাদের সেসব পরিকল্পনা কার্যকর করার সক্ষমতা রয়েছে; ন্যাটো কমান্ডাররা বর্তমানে তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছেন। তবে সংঘাতের সময় ব্যবহৃত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের ঘাটতির মুখোমুখি হয়েছে জোটটি।

ওই কর্মকর্তা বলেছেন, জোটের সদস্যদের এই ক্ষেত্রে সক্ষমতার ঘাটতি রয়েছে। এমন কিছু অস্ত্র রয়েছে যা এই মুহূর্তে আমাদের জোটে যথেষ্ট পরিমাণে নেই। তবে আমাদের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে।’’

সূত্র: এএফপি।

আরও পড়তে পারেন

+ There are no comments

Add yours