ফিলিস্তিনে গণহত্যায় মানবাধিকার নিয়ে কেন কথা বলে না জিল্লুর-তাসনিমরা?

1 min read

বর্তমানে কিছু বাংলাদেশি সাংবাদিক দেশের মানবাধিকার নিয়ে বেশ তৎপর হয়ে উঠেছে। জিল্লুর রহমান এবং তাসনিম খলিলের মত কিছু লোক সোশ্যাল মিডিয়াসহ বিভিন্ন মাধ্যমে দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি বেশ খারাপ বলে প্রচার করছে। লাগাতার দেশের বিভিন্ন ইস্যুতে তারা বিরূপ মন্তব্য করে যাচ্ছে। দেশবিরোধী এসব কথাবার্তার যুক্তি হিসেবে তারা বলে যেখানেই মানবাধিকার লঙ্ঘন হবে সেখানেই তারা স্বোচ্চার হবেন। কিন্তু বাস্তবতা সম্পূর্ণ উল্টো।

তারা এমনভাবে খবর প্রচার করে যেন সারা বিশ্বে শুধু বাংলাদেশেই মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে। কিন্তু ফিলিস্তিনসহ পুরো মসিলম বিশ্বে যেভাবে গণহত্যা চালানো হচ্ছে, তা সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। কীভাবে নিজেদের বসতি থেকে ফিলিস্তিনি মুসলমান ভাই-বোনদের উচ্ছেদ করা হয়েছে, কীভাবে তাদেরকে বন্দি করে অমানবিক নির্যাতন করা হচ্ছে। খাদ্য এবং পানি বন্ধ করে তাদেরকে হত্যা করা হচ্ছে, নিরীহ নারী এবং শিশুদের ওপর প্রতিদিন বর্বর বোমা হামলা চালাচ্ছে নৃশংস ইহুদিরা।

কিন্তু মুখে মুখে মানবাধিকারের ফেরিওয়ালা সাজলেও এসব নিয়ে আজ পর্যন্ত একটি বারও কোন কথা বলেনি জিল্লুর-তাসনিমরা। কারণ ফিলিস্তিনিরা তাদেরকে মোটা টাকা দিতে পারেনা। বাংলাদেশ বিরোধী একটি মহল এসব প্রচারণার জন্য তাদেরকে প্রতিমাসেই প্রচুর টাকা দেয়। তাই তারা নিঃসংকোচে দেশের বিরুদ্ধে এইসব মিথ্যা কথা প্রচার করে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য কিছু পশ্চিমা শক্তি বেশ কিছুদিন ধরেই দেশের পরিস্থিতি অশান্ত করে তুলতে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তথাকথিত এসব সাংবাদিক সেই ষড়যন্ত্রেরই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে। দেশের কিছু রাজনৈতিক দলের সাথে মিলে এই অপপ্রচার চালাচ্ছে তারা। তাই সাংবাদিক নামধারী এসব অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের সবারই সচেতন হতে হবে।

আরও পড়তে পারেন

+ There are no comments

Add yours