আত্মহত্যা করতে প্রধান বিচারপতির দ্বারস্থ হলেন অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় সীমান্তরক্ষী

1 min read

নিউজ ডেস্ক: আত্মহত্যা করতে চেয়ে আসামের প্রধান বিচারপতির দ্বারস্থ হলেন এক অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় সীমান্তরক্ষী। অবসরপ্রাপ্ত ওই বিএসএফ জওয়ানের আশঙ্কা, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হলে ধ্বংস হবে উত্তরসূরিদের ভবিষ্যৎ। তাই আগামী প্রজন্মের স্বার্থেই নিজের জীবন উৎসর্গ করতে চান তিনি।

অবসরপ্রাপ্ত এই বিএসএফ জওয়ানের নাম বিমলচন্দ্র বরকাকতি। আসামের মরিগাঁওয়ের বাসিন্দা তিনি। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হলে কী হবে, এই নিয়ে তিনি আতঙ্কে আছেন। আকুল হয়ে চিঠিটি লিখেছেন রাজ্যের প্রধান বিচারপতিকে।

নাগরিকত্ব সংশোধনীর মাধ্যমে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের শরণার্থীদের শর্ত সাপেক্ষে নাগরিকত্ব দিতে চায় ভারতের বর্তমান বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার। এই উদ্দেশ্যে এরই মধ্যে পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে বিলটি পাস করিয়েছে বিজেপি। বিলটি এখন পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বিবেচনাধীন।

রাজ্যসভায় প্রয়োজনীয় সমর্থন নেই বিজেপির। তাই বিলটি পাস হওয়ার সম্ভাবনা কম। তার পরও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল প্রত্যাহারের দাবিতে উত্তর-পূর্ব ভারতের ৮ রাজ্যেই চলছে বিক্ষোভ। এমন অবস্থায় অবসরপ্রাপ্ত বিএসএফ জওয়ানের এই চিঠি চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

বরকাকতির আশঙ্কা, নাগরিকত্ব বিল পাস হলে আসামের ভূমিপুত্রদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস হয়ে যাবে। আসাম হারাবে তার সংস্কৃতি। সেই সঙ্গে আসামের আগামী প্রজন্ম নিজেদের পরিচিতি হারাবে। ভারত সরকার কীভাবে এমন বিলটি পাস করানোর জন্য মরিয়া, এই নিয়ে চিঠিতে সমালোচনা করেন তিনি।

প্রধান বিচারপতির কাছে তিনি আরজি জানান, বিলটি পাসের দিনই তাঁকে সপরিবার আত্মহত্যা করার অনুমতি দেওয়া হোক।

আরও পড়তে পারেন

+ There are no comments

Add yours